ফিরে আসছে স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হেলিও?

হেলিও ব্র্যান্ডটি দেশীয় ব্র্যান্ড সিম্ফনির একটি সিস্টার ব্র্যান্ড, সিম্ফনির প্যারেন্ট গ্রুপ এডিসনের অধীনে আরেকটি ব্র্যান্ড ছিলো এটি। ২০১৭-১৮ এর দিকে একদম লো বাজেটে লাইট টেল, আরেকটু হায়ার রেঞ্জে সিম্ফনি এবং মিড বাজেটে হেলিও ব্র্যান্ডিংয়ে তারা তাদের মোবাইলগুলো আনতো। তবে পরবর্তীতে হেলিও বা লাইট টেল কোনটিই কন্টিনিউ করেনি।

হেলিও ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলো ছিলো কিছুটা প্রিমিয়াম, ১৫ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা সেগমেন্টে। হেলিও ব্র্যান্ডিংয়ে মোট ৭টি স্মার্টফোন এসেছিলো, ২০১৮ সালের আগস্টে সর্বশেষ Helio S60 ও Helio S5 রিলিজ হওয়ার পর নতুন কোন স্মার্টফোন আর আসেনি হেলিও-র পক্ষ থেকে।

অবশ্য এর কারণটাও অনুমেয়। এন্ট্রি লেভেল থেকে মিড বাজেটের কম্পিটিশনটা ভিন্ন। এই মার্কেটে কম্পিট করার ক্ষেত্রে ভালো কিছু স্মার্টফোন যদিও এনেছে, তবে মিড বাজেটে গ্লোবাল ব্র্যান্ডগুলোর অবস্থান অনেক শক্ত। পাশাপাশি রেগুলার আপডেট প্রদান না করা ও রিপেয়ার স্পেয়ার পার্টসের পর্যাপ্ত সরবরাহ নিশ্চিত না করা ছিলো হেলিও-র দুর্বলতার অন্যতম।

যাইহোক, গত বছর বিশ্বস্ত মাধ্যমে জানতে পেরেছিলাম হেলিও ফিরে আসবে, তবে এরপর এ নিয়ে আরো কোন অগ্রগতি চোখে পড়েনি। সবশেষ নতুন খবর হলো সিম্ফনির ওয়েবসাইটে হেলিও নামে একটি ক্যাটাগরী যুক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত এখানে কোন স্মার্টফোন অবশ্য নেই, তবে হেলিও নিয়ে তারা যে কাজ করছে এবং খুব শীঘ্রই নতুন স্মার্টফোন এর অধীনে আসতে পারে, এটি অবশ্যই তার একটি স্পষ্ট আভাস।

সম্ভাব্য আপকামিং হেলিও স্মার্টফোন নিয়ে কোন একচুয়াল তথ্য দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এটা আগের মত পৃথক ব্র্যান্ডিং থাকবে, নাকি সিম্ফনি ব্র্যান্ডিংয়ে সিরিজ হিসেবে হবে, তা-ও বোঝা যাচ্ছে না। যদিও এতে বোধ করি কিছু যায় আসে না।

হেলিও ইতোপূর্বে মিড বাজেট সেগমেন্টে টার্গেটেড থেকেছে। গত কয়েক বছরে সিম্ফনি মিড বাজেট সেগমেন্টে একদমই যায়নি, ১১ হাজার টাকার ওপরে কোন স্মার্টফোন-ই আসলে তারা আনেনি। হেলিও থেকে ফোন আনলে কিছুটা আপার রেঞ্জ হবে, তবে এক লাফে খুব প্রিমিয়াম সেগমেন্টে হয়ত যাবে না। বর্তমান প্রাইস ইনক্রিজ ট্রেন্ড চিন্তা করলে ১৪-১৫ হাজারের মধ্যে হেলিও-র নতুন ফোন আসতে পারে বলে আমার অনুমান। আবারও, এটা জাস্ট আমার অনুমান।

বর্তমানে সিম্ফনি ফোনগুলো দেশেই অ্যাসেম্বল হয়। পার্টস অ্যাভেইলেবিলিটি নিয়ে পূর্ববর্তী হেলিও স্মার্টফোনগুলোতে যে ইস্যু ছিলো তা আশা করি এবার থাকবে না। ১৫ হাজারের মধ্যে স্মার্টফোনগুলোতে বাগ ফিক্স আপডেট হয়ত যথেষ্ট, তবে এর ওপরের বাজেটে গেলে ফিচার আপডেট কিন্তু এক্সপেক্টেড থাকে, যা যথাযথভাবে প্রদান করতে না পারলে একটা ডিজএডভান্টেজ হিসেবে থাকবে।

7 Comments

  1. helio এর জন্য শুভ কামনা রইলো।দেখা যাক তারা কতটা সফলতা পায়।কম বাজেটে ভালো কিছু দিতে পারলে সিম্ফনির মতো helio মার্কেটে ভালো অবস্থান তৈরী করবে বলে বিশ্বাস করি।

  2. তাহমিদ হাসান ভাইকে ধন্যবাদ তার এতো সুন্দর কন্টেন্টের জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *