আন্ডার ডিসপ্লে সেল্ফি ক্যামেরা নিয়ে তাক লাগিয়ে দেয়া ZTE আনছে তাদের নতুন ফোন- ZTE Axon 30 Pro

প্রায় ৪ মাস আগে ZTE যখন ঘোষণা দেয় তারা ইন-ডিসপ্লে সেল্ফি ক্যামেরা দিয়ে একটি ফোন আনতে যাচ্ছে, তখন পুরো সোশ্যাল মিডিয়াতে এই তথ্যটি হয়ে যায় ভাইরাল এবং হাইপড। হাইপড হওয়াও স্বাভাবিক, কারণ বাজারের অন্যান্য ফোনের মতো এই ফোন ছিলোনা। এই ফোনে ছিলো ফিউচারের ইন-ডিসপ্লে ক্যামেরা টেকনোলোজি। যেটি বড় বড় মোবাইল ম্যানুফ্যাকচারাররা চাইলেও এখন পর্যন্ত আনতে পারেনি কমার্শিয়ালি।

এর আগেও ভিভো একটি প্রোটোটাইপ এনেছিলো এই বিষয়ে। তবে সেটি প্রোটোটাইপ-ই ছিলো, বাস্তবের বাজারে সেটির এখনো আগমণ ঘটেনি। এরই ধারাবাহিকতায় ZTE আনতে যাচ্ছে তাদের Axon সিরিজের নতুন সাক্সেসর- ZTE Axon 30 Pro কে। কী থাকছে এই নতুন ফোনে? আসলেও কি সাক্সেসর বলার দাবী রাখে? নাকি এখনকার এন্ড্রয়েড জগতের মোস্ট অফ দ্যা ফোনের মতোই হাল্কা চেঞ্জ নিয়ে এসে, শুধু নামটা বৃদ্ধি করেই হয়ে যাবে সাক্সেসর?

আসুন জেনে নিই কী থাকবে/থাকছে এই ফোনে। লিক অনুযায়ী ZTE Axon 30 Pro হতে পারে বিশ্বের প্রথম ফোন যাতে ব্যবহার করা হবে Samsung S5KGND সেন্সর যেটি এখনকার সবচেয়ে বড় মেগাপিক্সেল সেন্সর। এর মেগাপিক্সেল সংখ্যা ২০০ মেগাপিক্সেল! অবাক লাগলেও সত্যি ২০০মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে আসছে একটি স্মার্টফোন।

যদিও এই ব্যাপার টা সবাই জানতো। কারণ, যেভাবে মেগাপিক্সেল সংখ্যা বাড়ছে তা নিয়ে কারোই সন্দেহ থাকার কথা না এই ব্যাপারে। যদি আরেকটু তথ্য এই সেন্সরের জন্য দেওয়া যায় তাহলে, এটি, 1/1.37″, রেজুলেশন- 50M 8192×6144 (২০০M, ৫০M আউটপুট), ১.২৮um পিক্সেল সাইজ (0.64um PD), কোয়াড টেট্রাসেল CFA, কোয়াড-PD Auto Focus, 96fps 10bit এট 12.5Mp BayerRAW, MIPI 4 lane RAW. এবং সবশেষে এটি সাপোর্ট করে ডুয়াল ন্যাটিভ ISO এবং সর্বোচ্চ ১৬কে ভিডিও সাপোর্ট।

ক্যামেরা স্পেক্স দেখে মনে হচ্ছে স্মার্টফোন ক্যামেরা টেকনোলোজি অনেক এগিয়ে গিয়েছে আগের তুলনায়। যাই হোক, এতে আমাদেরই লাভ। তবে ফোনের চিপসেট বা অন্যান্য স্পেক্স সম্পর্কে এখনো স্পষ্ট কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।  আমার মতে, এক্সিনস ২১০০ থাকবে এই নতুন Axon 30 Pro তে, কেননা, স্ন্যাপড্রাগনের লেটেস্ট ফ্ল্যাগশিপের আই.এস.পি ২০০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সাপোর্ট করেনা। অন্যদিকে এক্সিনস ২১০০ এর ক্যামেরা আই.এস.পি ২০০মেগাপিক্সেল হ্যান্ডেলের জন্যই বানানো হয়েছে। অবশ্য এটা শুধু অনুমান, সময় আসলেই সঠিক তথ্য জানা যাবে।

সোর্স: DoT (টেলিগ্রাম গ্রুপ)

Leave a Reply