Itel A48: অনেক দিন পরে আইটেলের নতুন স্মার্টফোন, ৬৭০০ টাকা

আসসালামু আলাইকুম

Itel Vision 1 ও Vision 1 Plus রিলিজের পর দীর্ঘ সময় ধরে নতুন কোন স্মার্টফোন আসেনি এন্ট্রি লেভেল বাজারে পরিচিত নাম আইটেল ব্র্যান্ডের পক্ষ থেকে, যদিও একই কোম্পানি ট্রানশন হোল্ডিংসের আওতায় থাকা অন্য দুটি ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স ও টেকনোর পক্ষ থেকে এসময়ের মধ্যে বেশ কয়েকটি নতুন ডিভাইস এসেছে।

যাইহোক, অনেক দিন পর আইটেলের একটি নতুন স্মার্টফোন বাংলাদেশে রিলিজ হলো, Itel A48। Itel Vision 1 এর সাথে এর দামে পার্থক্য ৩০০ টাকা, ৬৭০০ টাকায় বাজারে এসেছে Itel A48। তবে দাম ৩০০ টাকা কমলেও ফিচারও বাদ পড়েছে বেশ কিছু। তাছাড়া ৬৮০০ টাকা ও ৭০০০ টাকায় রিলিজ হওয়া Walton Primo GH9 আর Symphony i99-ও আছে এই ডিভাইসের প্রতিপক্ষের তালিকায়।

সবকিছু মিলিয়ে কেমন হতে পারে এই ডিভাইস, চলুন তা নিয়ে আমার মতামত শেয়ার করি। বলে রাখি, আমি ফোনটি ব্যবহার করিনি, কনফিগারেশন তাই বাস্তব অভিজ্ঞতায় কিছুটা তফাৎ থাকতে পারে। তবে আমি চেষ্টা করছি, যতটা সম্ভব ফোনটি সম্পর্কে একটি বিশ্লেষণমূলক ভালো ধারণা দিতে।

আমার মনে হয়েছে, Itel A48 এর বেস্ট পার্ট হলো এর ডিজাইন। এর ব্যাকপার্টটি অনেকটা Itel Vision 1 Plus এর মত, এবং এখানে ম্যাট ফিনিশ থাকছে যা দেখতে খুবই সুন্দর, সাথে হাতেও একটা ভালো গ্রিপ দেয়। পার্পল ও গ্রিন গ্র্যাডিয়েশন কালারগুলো প্রতিটিই সুন্দর লেগেছে।

এই সুন্দর ব্যাকপার্টের ক্যামেরা মডিউলটাও বেশ সুন্দর। এত কম বাজেটে এরকমটা এর আগে দেখিনি। তবে এই সুন্দর মডিউলে থাকা ক্যামেরা সেটআপ মোটেও সুন্দর নয়। প্রাইমারী সেন্সরটি 5MP, অন্যটি AI Lens, আর সবার নিচেরটি হলো ফ্ল্যাশ। অন্যদিকে সামনে  নচে রয়েছে আরেকটি 5MP সেলফি ক্যামেরা। ৬৭০০ টাকা এতটাও কম নয়, এর ক্যামেরা সেটআপ আমার কাছে হতাশাজনক মনে হয়েছে।

এখানে ওয়াটারড্রপ নচ থাকলেও এটা কিছুটা চওড়া, যেটা মনে হয়েছে আরেকটু মিনিমাল হলে সুন্দর দেখাতো। চিন, বেজেল একটু থিক মনে হলো, বাজেট হিসেবে অবশ্য অভিযোগ করা যায় না। ডিসপ্লে সাইজ 6.1″ এবং এটি একটি HD+ রেজ্যুলেশনের IPS প্যানেল। দাম হিসেবে এই ডিসপ্লে ভালোই বলব।

Vision 1 এর মত এখানেও 2GB র‍্যামের সাথে 32GB ইনবিল্ট স্টোরেজ থাকছে। 128GB পর্যন্ত এক্সপেন্ডের সুযোগও রয়েছে। এই দামে এটা অবশ্যই বেশ ভালো ব্যাপার, তবে যে ব্যাপারটি ভালো নয় তা হলো চিপসেটে বড় ধরণের ডাউনগ্রেড করা হয়েছে।

কিছুদিন আগেও আমরা ৬-৭ হাজারের ফোনে চিপসেট সেভাবে দেখতাম না, কেননা 1.3GHz Quad Core-এর বেশি কিছু এই দামে এক্সপেক্টেড থাকতো না। এখন একটু পরিবর্তন এসেছে। ৬-৭ হাজারে এখন Helio A20, Unisoc SC9863A এরকম চিপসেটগুলো দেখা যাচ্ছে বেশ কিছু ডিভাইসে।

তবে এখানে সেটা ঘটেনি। দেওয়া হয়েছে Unisoc SC9832E। এটি একটি কোয়াড কোর চিপসেট, যার ক্লকস্পিড 1.4GHz এবং সবগুলো কোর ARM Cortex A53। 28nm সাইজের ট্রানজিস্টরে তৈরি এই চিপসেটের GPU Mali T820 MP1। কিছু 1.3GHz চিপসেটে Cortex A7 দেখা যায়, যা থেকে A53 বেশ ভালো। তাছাড়া এটি LTE সমর্থিত একটি চিপ। তাই ১০০০ টাকা দাম কম হলে এই চিপসেটকে মানানসই বলতাম। কিন্তু ৬৭০০ টাকায় এটা ভালো লাগেনি।

এরপর ব্যাটারীও এখানে কমে হয়েছে 3000 mAh। রেয়ার মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এখানে থাকছে এবং সফটওয়্যার বেজড ফেস আনলক সুবিধাও রয়েছে। থাকছে 4G VoLTE সমর্থন। তবে এবার স্পিকার গ্রিলস ব্যাকসাইডে থাকছে, যেটা Vision 1 ও 1 Plus এ নিচের দিকে ছিলো। ব্যাকসাইডে থাকার অসুবিধা হলো ফোন বিছানা, টেবিল এরকম সার্ফেসে রাখলে সাউন্ড কিছুটা ব্লক হয়।

সফটওয়্যার হিসেবে Android 10 তো থাকছে, কিন্তু দেয়া হয়েছে Go এডিশন, যেটা ঠিক কেন, তা আমি বুঝিনি। Vision 1-এ সম্ভবত Android 9.0 এর রেগুলার এডিশন ছিলো। আর যতটা জানি Android 11 থেকে 2GB র‍্যামে Go এডিশন দিতে গুগল রেকমেন্ড করেছে, কিন্তু Android 10-এ তো নয়। হয়ত চিপসেটের সাথে এর সম্পর্ক থাকতে পারে…

বেশ কিছু তথ্যের গ্যাপ আছে এই লেখায়। যেমন, ফোনটির থিকনেস, ওজন, কাস্টম ইউআই আছে কিনা, ওটিজি সমর্থিত কিনা এই তথ্যগুলো আসলে আমারও নিশ্চিতভাবে জানা নেই। আইটেলের বাংলাদেশি ওয়েবসাইটে এখনো এই ফোনটির তথ্য যুক্ত করা হয়নি। তাদের ফেসবুক পেজ ও ভারতীয় ওয়েবসাইট থেকে ছবি ও তথ্য সংগৃহীত। তবে আইটেল আসলে ফোনগুলো নিয়ে খুব ডিটেইলড তথ্য প্রদান করে না ওয়েবসাইটে, যেটা আমার মতে তাদের করা উচিৎ।

সব মিলিয়ে দেখলে মাত্র ৩০০ টাকা দাম কমলেও Vision 1 থেকে প্রচুর কমতি আছে এখানে। ক্যামেরা, চিপসেট, স্পিকার পজিশন, ব্যাটারী এত জায়গায় কম্প্রোমাইজ করলেও দামটা তেমন কমেনি। সব মিলিয়ে আমার এটা ভালো লাগেনি। তবে এটা সত্য, এর দুর্দান্ত ডিজাইন আর ম্যাট ফিনিশ হয়ত অনেকের জন্য এই ফোন কেনার কারণ হতে পারে।

তবে এই বাজেটে Walton Primo GH9 আর Symphony i99 বর্তমান সময়ে আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। যদিও এদের ইনবিল্ট স্টোরেজ 16GB, তবে ক্যামেরা সেকশনে এরা অনেক বেটার এবং Android 10 এর রেগুলার এডিশন থাকছে। যাইহোক, আপনার ডিসিশন অবশ্যই দিনশেষে আপনার হাতেই থাকছে।

নিয়নবাতি স্কোর

কোন ফোন কতটা ভ্যালু ফর মানি তা নির্ণয়ের জন্য আমাদের বিশেষায়িত একটি স্কেল হলো নিয়নবাতি স্কেল। এখানে ৫০ পেলে তা বাজেট অনুযায়ী ঠিকঠাক একটি ডিভাইস, ৬০ এর বেশি পাওয়া অর্থ হলো ভালো একটি ডিল এবং ৭০ এর বেশি পেলে গ্রেট ভ্যালু ফর মানি।

  • ডিজাইন: ৬.৫/৮
  • বিল্ড: ৬.৫/১০
  • ডিসপ্লে: ৮/১২
  • ক্যামেরা: ৪.৫/১৫
  • ব্যাটারী ও চার্জিং: ৫.৫/১০
  • চিপসেট ও র‍্যাম: ১২/২৮
  • স্টোরেজ: ৫/৭
  • অন্যান্য: ৬/১০

মোট স্কোর: ৫৪

আরো দেখতে পারেন,

আল্লাহ হাফিজ
আসসালামু আলাইকুম

Loading spinner

One Reply to “Itel A48: অনেক দিন পরে আইটেলের নতুন স্মার্টফোন, ৬৭০০ টাকা”

  1. MD Imran Mia says: October 21, 2020 at 5:19 pm

    nice review!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You may use these <abbr title="HyperText Markup Language">html</abbr> tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*