আপকামিং Symphony i99 এর দামসহ বিস্তারিত, সামনে আসতে চলেছে Symphony Z30 Pro…

সিম্ফনি দেখলাম তাদের ফেসবুক পেজে এখন গেস দা প্রাইস কনটেস্ট চালাচ্ছে। তাতে আমার কী? আমি তো গতকাল থেকেই জানি এটার দাম ৬,৯৯০ টাকা.. ঘটনা হলো সিম্ফনির ওয়েবসাইটে মূল তালিকা থেকে সরিয়ে রাখলেও কম্পেয়ার সেকশনে ফোনটি দেখা যাচ্ছিলো। তাদের ফেসবুক পেজে নিচের কমেন্টখানা করার কিছু পরে দেখলাম সরিয়ে ফেলেছে। তাতে সমস্যা নেই, চলুন শেয়ার করি কী কী থাকছে Symphony i99 ডিভাইসটিতে।

Symphony i99

Z সিরিজকে সিম্ফনি তো প্রায় নচ সিরিজ বানিয়ে ফেলেছে, তাদের এতদিন পর্যন্ত আসা ৮টি নচ ডিসপ্লে ফোনের সবগুলোই Z সিরিজের। তো, Symphony i99 হতে চলেছে Z সিরিজের বাইরে সিম্ফনির প্রথম নচযুক্ত স্মার্টফোন। তবে এই স্মার্টফোনটি ঠিক নতুন না… যদ্দুর বুঝলাম, এতে Z15 এর বডিতে Z12 এর স্পেক আর Android 10 দিয়ে তার সাথে i97 এর প্রাইসট্যাগ যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

Z12 এর দাম ছিলো ১০ টাকা কম ৮০০০ টাকা, i99-এ তার ১০০০ টাকা কমে প্রায় একই স্পেক, বরং স্লাইটলি বেটার কিছু পাওয়া যাচ্ছে, যেটি বেশ ভালো ব্যাপার। আর বর্তমানে i99 এর সমান দামে মার্কেটে থাকা i97 থেকে কিন্তু এটি বেশ ভালো আপগ্রেড। Itel Vision 1 এর সরাসরি প্রতিপক্ষ হতে পারে Symphony i99। আমার একে বেশ ভালোই মনে হচ্ছে। ফোনটি নিয়ে আলোচনার সময় দামটা কিন্তু বিবেচনায় রাখতে হবে। ৭০০০ টাকায় খুব বেশি এক্সপেক্টেশন রাখা ঠিক নয়।

ফোনটি বাস্তবে বা কোন ছবি না দেখলেও আধ্যাত্মিক শক্তিতে দেখতে পাচ্ছি এর বডি ও ডিজাইন ল্যাঙ্গুয়েজ Symphony Z15 এর অনুরূপ, হয়ত কালার অপশনে পরিবর্তন থাকতে পারে, আর থিকনেস সামান্য (0.2 mm) বেশি। এর ডাইমেনশন 155.5 X 73X 8.9mm। এখানে দেওয়া হয়েছে 6.09″ সাইজের 720*1560 (19.5:9) অর্থাৎ HD+ রেজ্যুলেশনের IPS ডিসপ্লে। এখন পর্যন্ত i সিরিজে এটিই সবচেয়ে বড় ডিসপ্লে এবং প্রাইজ সেগমেন্ট অনুযায়ী এটি একটি স্ট্যান্ডার্ড সাইজ। এর পিক্সেল ডেনসিটি ~282।

ক্যামেরা সেকশনে আসলে এটি i সিরিজের প্রথম ডুয়াল ক্যামেরা স্মার্টফোন। দ্বিতীয় ক্যামেরাটি 2MP-র একটি ডেপথ সেন্সর। মেইন ক্যামেরা 13MP, সেলফি ক্যামেরা 8MP। আজকাল সিম্ফনি ক্যামেরা সেকশনে ভালো করছে। Itel Vision 1 থেকে এটি কিন্তু ক্যামেরা সেকশনে বেশ উন্নত, কেননা সেখানে মেইন ক্যামেরা ছিলো 8MP, সেকেন্ডারিটি কি জানানো হয়নি, সম্ভবত AI লেন্স (ধরে নিন এর কোন কাজ নেই), সেলফি ক্যামেরা 5MP।

চিপসেট হিসেবে থাকছে Unisoc SC9863A। যদি এই ফোনের দাম ৯০০০ টাকা হত, অবশ্যই এই চিপসেটটি নিয়ে আপত্তির সুযোগ থাকতো। কিন্তু দাম যখন ৭০০০ টাকা, এটি কিন্তু বেশ ভালো একটি চিপসেট, যদিও 28nm-এর। এখানে ৮টি ARM Cortex-A55 আছে, যাদের চারটির ক্লকস্পিড 1.6GHz এবং বাকি চারটি 1.2GHz। GPU রয়েছে IMG8322@550MHz। এরকম লো বাজেট চিপসেটে Cortex-A53 থাকে সাধারণত, এখানে থাকা A55 তার থেকে 20% শক্তিশালী বলে বলা হয়েছে।

ফোনটিতে 2GB র‌্যাম আছে, সাথে 16GB ইনবিল্ট স্টোরেজ। হ্যাঁ, 32GB থাকলে ভালো লাগতো, বিশেষ করে এর বড় প্রতিপক্ষ Vision 1-এ 32GB স্টোরেজ যখন আছে। যাইহোক, প্রয়োজনে SD কার্ড ব্যবহারের সুযোগ তো থাকছেই, নয় কী? ব্যাটারী দেওয়া হয়েছে 3500 mAh। এই দামে একদমই আপত্তি করছি না, তবে জাস্ট জানিয়ে রাখি, Vision 1-এ 4000 mAh রয়েছে।

সফটওয়্যার সেকশনে Android 10 অবশ্যই থাকছে। আমার জানামতে এটি গো এডিশন নয়, পূর্ণ অ্যান্ড্রয়েড। আর সিম্ফনির UI তো বরাবরই স্টক, আর আমি বিশেষ করে এন্ট্রি লেভেলে স্টক অ্যান্ড্রয়েডই পছন্দ করি, কেননা এখানে লিমিটেড রিসোর্স থেকে কিছুটা হলে ভালো পারফর্মেন্স পাওয়াটা কাস্টমাইজেবিলিটি বা ভারি ফিচার্সের থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আর তাছাড়া ক্লিন, বিজ্ঞাপনমুক্ত ইন্টারফেস এর আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ এডভান্টেজ।

আপাতত এটুকুই জানতে পেরেছি। ১০ তারিখ পর্যন্ত গেস দা প্রাইস কনটেস্ট, সে হিসেবে ১২-১৩ বা ১৫ তারিখের দিকে রিলিজ হতে পারে। যেটুকু দেখলাম, তাতে ভালো বলেই মনে হচ্ছে ডিভাইসটি। Itel Vision 1 থেকে ব্যাটারী ও স্টোরেজে কিছুটা কম হলেও ভালো ক্যামেরা ও Android 10 কিন্তু পাওয়া যাচ্ছে, আর ব্র্যান্ড হিসেবেও আইটেল থেকে সিম্ফনি বেশি পরিচিত।

Symphony Z30 Pro

এবার আরেকটি ফোনের খবর। Geekbench 4 এ Symphony Z30 Pro এর বেশ কিছু বেঞ্চমার্ক দেখা যাচ্ছে। এখানে স্কোরগুলো দেখে নিতে পারেন। যেহেতু i99 রিলিজ হতে চলেছে, তাই এই মাসের মধ্যে রিলিজের সম্ভাবনা খুব কম। সম্ভবত আগামী মাসে এটি বাজারে আসতে পারে।

Z িসরিজে কিছুদিন ধরে একের পর এক ফোন এনে চলেছে সিম্ফনি। একটা সময়ে ১৪ হাজারের নিচে এই সিরিজের ফোন দেখা না গেলেও এখন ৮০০০ এর উপরে তাদের সব ডিভাইসই Z সিরিজে আসছে দেখছি। এই ধারাবাহিকতায় এবার আসতে চলেছে Symphony Z30 Pro, যেমনটা দেখা যাচ্ছে গীকবেঞ্চে। এখানে থাকছে 4GB র‌্যাম, আর খুব সম্ভবত 64GB স্টোরেজ। তবে আগের মত এবারও থাকছে Helio A25! এখানে আপগ্রেডের আশা করছিলাম, কিছুটা হতাশ।

Helio A25 একটি অক্টাকোর চিপ এবং বর্তমানে এন্ট্রি লেভেলে জাতীয় চিপ হয়ে উঠছে। এটা আমি বলব ৮ হাজার টাকায় বেশ ভালো, ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত চলে। তবে Z30 এর দাম যেখানে ৯৮০০ টাকা, তখন Z30 Pro ১০০০০ এর মধ্যে আশা করতে পারছি না। এর প্রসেসর 4×1.8GHz+4×1.5GHz Cortex A53, আর GPU PowerVR GE8320@600MHz এবং ট্রানজিস্টর সাইজ 12nm।

Z30 Pro বেসিকালি Z30-রই 4/64 ভার্সন হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তবে Z30 তে মাদারবোর্ড ও সফটওয়্যার 32bit ছিলো, এখানে 64bit দেয়া হয়েছে। এছাড়া হয়ত কালার ভ্যারিয়েন্টে তফাৎ আসতে পারে। ডিসপ্লে, ব্যাটারী, ক্যামেরা এদিকগুলোতে খুব সম্ভব কোন ভিন্নতা আসবে না। আর Z50 ১১০০০, Z30 ৯৮০০ টাকা বর্তমান দাম, সে হিসেবে Z30 Pro হয়ত ১০৫০০ টাকা হতে পারে।

এটা ঠিক যে, সব কোম্পানিকেই পারফর্মেন্স ফোকাসড ফোন আনতে হবে, ১১-১২ হাজারে G70, G80 এরকম চিপসেট দিতে হবে এমনটা আমি মনে করি না। তারপরও ১০০০০ এর উপরে গেলে P35 বা G35 দিলে ভালো দেখাতো মনে করি। যাইহোক, A25 ডে টু ডে সিম্পল টাস্কগুলো বেশ ভালোভাবেই সামলাতে সক্ষম আর কিছুটা ভারি টাস্কও মোটামুটি সামলাতে পারে। ১৩০০০ টাকার Tecno Spark 5 Pro তেও এই চিপসেট দেওয়া হয়েছে।

Loading spinner

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You may use these <abbr title="HyperText Markup Language">html</abbr> tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*